Home বিনোদন রাজনীতির কিছুই বোঝেন না কাঞ্চন মল্লিক, দাবি স্ত্রীর

রাজনীতির কিছুই বোঝেন না কাঞ্চন মল্লিক, দাবি স্ত্রীর

by Shohag Ferdaus
কাঞ্চন

কাঞ্চন মল্লিক পশ্চিমবঙ্গের উত্তরপাড়া বিধানসভা কেন্দ্রে নির্বাচিত বিধায়ক। বিধায়কের অভিনেত্রী স্ত্রী পিঙ্কি বন্দ্যোপাধ্যায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘বৃষ্টি তোর গায়ে কোনও রং নেই, ন্যুড বলেই কি তুই এত ভাল? রক্তের রং লাল বলেই মিথ্যের রং কালো?’

এ বিষয়ে আনন্দবাজারকে পিঙ্কির স্পষ্ট জানান, ‘রাজনীতির তিনি কিছুই বোঝেন না। তবে এক অভিনেতার অপমৃত্যু হলে আরেক অভিনেতা কী করে খুশি হয়?’

অভিনেত্রীর দাবি, ‘‘কাঞ্চন মল্লিক আমার স্বামী। অবশ্যই আমি বিধায়কের স্ত্রী। কিন্তু এই পরিচয়ে আমি বাঁচি না। আমি অভিনেত্রী পিঙ্কি বন্দ্যোপাধ্যায়। এই নামেই অভিনয় দুনিয়া আমায় চেনে। এই নামেই আমার কাছে পারিশ্রমিকের চেক আসে। এই পিঙ্কি আগেও সাহসি ছবি দিয়েছে। সেই পিঙ্কিই বৃহস্পতিবার বৃষ্টি দেখতে দেখতে নিজেকে মেলে ধরেছে নিজের সামাজিক পাতায়।’

পিঙ্কির দাবি, ‘কাজ করতে গেলে রাজনীতিতে আসতে হয়, এ কথা আমি বিশ্বাস করি না। আমার মতে, বিপ্লব নয় সৃষ্টিশীল কাজ দিয়েই সমাজ, রাজ্য, দেশের উন্নতিসাধন সম্ভব।’

পিঙ্কির কথায়, যিনি যে কাজটি ভাল পারেন তাকে সেই কাজই মানায়। সেই কাজ দিয়েই সেই ব্যক্তি সবাইকে সঙ্গে নিয়ে নিজে এগোন। একই সঙ্গে পিঙ্কি বোঝেন, সৃষ্টিশীল মানুষেরা যত একা থাকবেন ততই তারা নতুন নতুন সৃষ্টি করতে পারবেন। দল বেঁধে থাকা তাদের জন্য নয়। জোর করে থাকতে গেলে কী অঘটন ঘটতে পারে তার অজস্র উদাহরণ ইতিহাসের পাতায় রয়েছে।

পিঙ্কির সাফ কথা, ‘কাঞ্চন অনেক লড়াই করে জিতেছে। নিশ্চয় সেটা আনন্দের। পাশাপাশি আমার মতে, রাজনীতিতে আসে মানেই শিল্পীসত্ত্বার অপমৃত্যু ঘটা। এক জন ভালো শিল্পীর মৃত্যুতে আরেক জন শিল্পীকে কখনও কেউ খুশি হতে দেখেছেন? আমারও সেই অবস্থা।’

ভয়েস টিভি/এসএফ

You may also like